সফল ইউটিউবার হতে চান ? ইউটিউবে সফল হওয়ার ১০টি উপায়

আপনি YouTube এ ভিডিও বানানো শুরু করেছেন, আপনি ইতি মধ্যেই জেনেও গিয়েছেন YouTube এ ভিডিও বানিয়ে সফল YouTuber রা প্রতিমাসে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করছে আপনি শুধু তাদের ভিডিও দেখছেন, আপনি শুরু করবেন  ভেবেছেন তাই  YouTube এ একটা কোনোভাবে চ্যানেল বানিয়ে  ভিডিও দেওয়া শুরু করেও দিয়েছেন কিন্তু কিছুতেই ভিডিও তে ভিউস আসছেনা কিছুতেই চ্যানেল গ্রো করছেন বুঝতেই পারছেননা আমি কি ভুল করছি আমি কেন চ্যানেল কে গ্রও করতে পারছি না তাহলে শুনুন আপনি যাদের ভিডিও দেখেন বা শুনেছেন যারা লক্ষ লক্ষ টাকা মাসে কামাচ্ছে তাদের কিছু সিক্রেট আছে যেটা তারা কাউকে বলেনা, আপনি শুধু এটুকুই জেনেছেন যে ইউটিউব থেকে প্রচুর ইনকাম হয় কিন্তু সিক্রেট কথা কেউ আপনাকে বলেনি আজ আপনাদের জানাবো আপনি নিজেই বলবেন এটাই একদম  ঠিক বলেছেন।

দেখুন ইউটিউব থেকে প্রচুর ইনকাম হয় এটা মানতেই হবে এতে কোনো ভুল নেই আমি নিজেও YouTube থেকে প্রচুর ইনকাম করেছি,, এই মুহূর্তে এসে বিশ্বাস করুন আপনি যদি শুধু কোনোরকম একটা চ্যানেল বানিয়ে ভিডিও দেওয়া শুরু করেন তাহলেই কিন্তু আপনি কখনোই একজন সফল ইউটিউবার হতে পারবেনা, তাহলে আপনি বলতেই পারেন তাহলে কি করবো বাবু।

শুনুন তাহলে বলি ১০ টা কথা যেটা আপনি মানতে বাধ্য হবেন দেখবেন কিছু ভিডিও খুব খারাপ তাও সেই ভিডিও গুলোতে ভিউস প্রচুর কিন্তু আপনি অন্তত তাদের থেকে ভালো ভিডিও বানাচ্ছেন কিন্তু ভিউস আসছেনা সেইটা লক্ষ করে দেখেছেন কি….? আপনি মনে করেছেন ভিডিও বানাবো আর টাকা কামাইবো হা হা হা যদি এতই সোজা হতো তাহলে আর কেউ কাজ করতো না বুঝলেন, ইউটিউব এও কাজ করার একটা স্ট্রাটেজি আছে যেটা আপনি না জেনে শুরু করে দিয়েছেন এতে আপনার শুধু সময়ই নষ্ট হবে, আমি বলছি না যে ইউটিউব থেকে ইনকাম হয়না ইউটিউব থেকে ইনকাম প্রচুর হয় যেটা আপনি স্বপ্নেও ভাবতে পারবেনা কিন্তু আপনি সঠিক পথ না জানাই জিনিসটা নিতে পারছেনা চলুন আপনাকে বোঝানর চেষ্টা করি কি করে কাজ করতে হয়…।

১) Niche/Topic Selection :- আপনি ভিডিও দেওয়া শুরু করে দিয়েছেন তার আগে বলি আপনি কি কোনো একটা বিষয়ে  ভিডিও দিচ্ছেন নাকি যখন যেটা মনে হয় সেটা করছেন আগে বলুন তো..? এই ভুল টা প্রত্যেক নতুন ইউটিউবাররা করে সত্যি বলতে শুরুতে আমিও করেছিলাম তখন আমি কিছুই জানতাম না, এবার ব্যাপার টা বোঝাই আপনাকে ভালো করে আপনাকে বুঝতে হবে আপনি কোন বিষয় নিয়ে ভালো জানেন বা পারেন আপনার দক্ষতা কোন বিষয়ে সেটা যেকোনো বিষয় হতে পারে আপনার ভিউয়ার্স রা তবেই তো আপনার ভিডিও দেখবে যাতে তাদের ভালো লাগে এখানে আরো ভালো করে বুঝুন, আপনি রান্না বান্নার ভিডিও দেখতে ভালোবাসেন তাই আপনি সেই চ্যানেল টার ভিডিও দেখেন বা সাবস্ক্রাইব করেছেন, সেখানে আপনার সামনে সেই চ্যানেল এর যদি অন্যান্য ধরণের ভিডিও আসে  যেমন ধুরন রোস্টিং ভিডিও  আপনার সেই বিষয়টাতে কোনো ইন্টারেস্ট নেই তাহলে আপনার কাছে ইম্প্রেশন গেলেও আপনি ক্লিক করেবননা তাই না অর্থাৎ এটাই হলো ব্যাপার, ইউটিউব এ ভিডিও দেখা বলুন বা নিজের লাইফ প্রত্যেকের এক একটা বিষয়ে ইন্টারেস্ট থাকে তাই সব সময় একটা  Niche/Topic Selection করে ভিডিও বানানো উচিৎ আর সেই বিষয় এর ভিডিও গুলো কে মানুষকে কেমন ভাবে প্রেসেন্ট করলে তারা দেখবে আপনাকে সেটা বুঝে ভিডিওবানাতে হবে । মনে রাখবেন আপনি কত কষ্ট করে বা সময় নিয়ে ভিডিও বানালেন সেটা কিছুই না আপনি আপনার ভিউয়ার্স রা কেমন ভিডিও দেখতে পছন্দ করে এবং সেইরকম ভিডিও বানালেই তবেই আপনি সফলতার একধাপ এগিয়ে যাবেন।

২) Channel Name Selection :- আপনি ইউটিউব এ চ্যানেল বানিয়েছেন, আপনার চ্যানেল ইউটিউব এ সার্চ দিলে আপনার চ্যানেল নাম আপনার ভিয়ার্স খুঁজে পাবে তো দেখেছেন কি সেটা..? চ্যনেল এর নাম সব সময় সহজ সরল হবে মানুষের যাতে মনে থাকে এবং সার্চ দিলেই খুজে পেয়ে যাই, আর চ্যানেল এর নাম কখনই যে নাম তা রাখবেন ভেবেছেন সেই নাম এ আগে থেকে বড়ো  চ্যানেল না থাকে অর্থাৎ প্রচুর সাবস্ক্রাইবার এর চ্যানেল না থাকে এর কারণ আপনার ভিউয়ার্স যখনই আপনার চ্যানেল খুঁজবে তখন আর আপনার চ্যনেল খুঁজে  পাবে না তখন ওই বড়ো চ্যানেল টাই আগে পাবে,তাই তো বলি একটা নাম সিলেক্ট করাও খুব গুরুত্বপূর্ণ এবং সহজ সরল নাম।

৩) Logo / Banner :- Logo  অথবা  Banner এর গুরুত্ব কতটা সেটা যদি বলেন তো আমি বলবো খুব একটা না, তবে হ্যাঁ একদম যে গুরুত্ব নেই তাও কিন্তু নয় কারণ Logo/Banner হলো আপনার চ্যানেল এর Identity ভিউয়ার্স আপনার চ্যানেল এর Logo এবং Banner দেখে আপনার চ্যানেল এটা সেটা মনে রাখবে। 

৪) Channel Creation & Setup :- আপনি তো ইউটিউব এ  চ্যানেল করে ভিডিও দেওয়া শুরু করে দিয়েছেন তাই না  .. কিন্তু আপনি কি জানেন ইউটিউব চ্যানেল ২ ধরণের হয় একটা পার্সোনাল চ্যানেল ও একটা ব্র্যান্ড চ্যানেল এছাড়াও একটা সঠিক চ্যানেল কে করতে হলে তাকে Keyword এবং সমস্ত সেটিং করতে হয় সেটা হয়তো আপনি জানেনই না তাইতো আমি বলি ইউটিউব ওপেন করলেই যে চ্যানেল তা অটোমেটিক তৈরী হয় সেটা ব্যান্ড চ্যানেল না সেটা auto create পার্সোনাল চ্যানেল, আপনি যদি সফল ইউটিউবার হতে চান আপনার চ্যানেল এর সমস্ত সেটিং ও ব্র্যান্ড চ্যানেল করাটা খুব খুব জরুরি।

৫) Searchable Video Creation :- আপনি মনে করেন যে চ্যানেল create করার পরে আমি ভিডিও ইউটউব এ  upload করে দেবো ভিউয়ার্স চলে আসবে হয়ে যাবে কিন্তু না সেটা কখনোই হয় না… আপনাকে মাথায় রাখতে হবে আপনি যে ভিডিও গুলো বানাবেন সেই ভিডিও গুলো Trending বা Popularity থাকতে হবে মানুষ জন তবে দেখবে আর তবেই পছন্দ করবে…… আর আপনি যে content টা করছেন যেন সেই ভিডিও টা লাইফ টাইম চলবে সেই রখম ভিডিও তৈরী করুন।

৬) Consistency Content Creation Strategy :- আপনিও কি এই ভুল টা করছেন..? যখন যেটা মনে হচ্ছে সেই ভিডিও করে আপলোড করে দিচ্ছেন আপনাকে মাথায় রাখতে হবে  আপনি যে ভিডিও গুলো তৈরী করছেন সেটার content strategy থাকতে হবে, বলতে গেলে আগে থেকে আপনাকে একটা লিস্ট  করতে হবে আমি এই ভিডিওর পর এইটা দেব মানে একটা ভিডিও দিলাম পরের ভিডিও কি দেব সেটা যেন আগে থেকে রেডি থাকে এরকম ৫ থেকে ১০ তা ভিডিওর লিস্ট আপনার রেডি থাকে … সেটা হচ্ছে আপনি একটা ভিডিও upload করলেন তার পরে কোন ভিডিও টা upload করবেন সেটা ঠিক লিস্ট করে রাখতে হবে এটাকে বলা হয় আপনার ভিয়ার্স বুঝে Content strategy.

৭) Attractive Thumbnail Design :- আপনি যে ভিডিও টা তৈরী করেছেন সেই ভিডিও টির Impression বাড়াবে একটি attractive thumbnail ..? হ্যাঁ এটা ঠিক একদম আপনি যদি পুরানো দিন এর মতো Thumbnail তৈরী করলে ভিউয়ার্স কখনোই আসবে না একদমই … তাই আপনার ভিডিও টির Thumbnail দেখেই ভিউয়ার্সরা আপনার ভিডিও তে ক্লিক করবে সেই জন্য আপনাকে ভালো করে Attractive Thumbnail Design করতে হবে।

৮) Audience Psychology Scripting :- ভিডিও বানাচ্ছেন ভিডিও শেষ পর্যন্ত দেখবে তো ভিয়ার্স রা নাকি ভিডিওতে ক্লিক করেই বেরিয়ে যাবে..?  Thumbnail টি তৈরী করেছেন সেটা দেখে ভিউয়ার্সরা আপনার ভিডিও তে click করলো কিন্তু ভিডিও টি দেখলো না বেরিয়ে গেলো কিন্তু কেন …? ভিডিও টির শুরু তে আপনাকে এমন কিছু বলতে হবে যাতে ভিউয়ার্সরা আপনার ভিডিও টি দেখে Hook হয় অর্থ্যাৎ যেন  শেষ পর্যন্ত দেখে  আপনাকে এমন ভাবে ভিউয়ার্স দের ভিডিও তে কথা গুলো বলতে হবে যাতে ভিডিওটি শেষ পর্যন্ত দেখে  তবে ভিউয়ার্সরা আপনার ভিডিও টি শেষ পর্যন্ত দেখবে। আপনার ভিডিওর Scripting  জবরদস্ত হতে হবে। 

৯) Perfect Video Editing :- Video Editing একটি খুব গুরুত্ব পূর্ণ বিষয় …. আপনার মনে এখন প্রশ্ন যাচ্ছে কেন ?  কারণ আপনার যারা ভিউয়ার্স যখন আপনার Thumbnail দেখে ভিডিও তে Click করলো তখন আপনার ভিডিও টি ভিউয়ার্স দের ধরে রাখার জন্য আপনাকে Perfect Video Editing করতে হবে। ধরুন আপনার রান্না, ব্লগ, বা বিউটিসিয়ান Related চ্যানেল আপনার ভিডিওর যে পার্ট গুলো বেশি গুরুত্ব পূর্ণ সেই পার্ট বা অংশ গুলো আপনি ভালো ভাবে Focus করতে পারেন Video Editing এর মাধ্যমে।

১০) Video Uploading With SEO :- আপনি যে ভিডিও টি Ready করলেন সেটা সঠিক নিয়মে SEO করে upload করা জানেন কি ….? ভিডিও আপলোড এর আগে আপনাকে অবশ্যই সিলেক্ট করে নিতে হবে কোন Keyword গুলোর Competition কম এবং volume বেশি সেই Keyword গুলো নিয়েই  আপনি যে ভিডিও টি upload করবেন সেটা সঠিক ভাবে Title, Description, Tag, #tag ব্যবহার করে SEO করতে হবে। আপনি যদি অন্য কোনো creator এর ভিডিও থেকে Title, Description, Tag কপি করে আপনার ভিডিওতে একই Title, Description, Tag তাহলে আপনার ভিডিও কোনো দিন ও rank হবে না কিন্তু কেন….? কারণ আপনি যে creator এর থেকে title, description, tag কপি করেছেন তার ভিডিও টি show করবে আপনার ভিডিও টির বদলে, তাই আপনাকে আপনার ভিডিও টি সঠিক ভাবে ইউটিউব থেকে  Title, Description, Tag নিয়ে SEO করতে হবে। এর জন্য কিছু SEO Tools ব্যবহার করতে পারেন যেমন Tubebuddy এবং vidiq ব্যাবহার করতে পারেন। 

কিছু কথা, আপনার জন্য আপনি যদি ইউটিউব এ সফল হতে সঠিক Niche/Topic যেমন গুরুত্বপূর্ণ তেমনি সেই Niche/Topic এ কোন বিষয় নিয়ে এখন ভিডিও বানালে মানুষজন দেখবে সেটাও গুরুত্বপূর্ণ এবং আপনার ধৈর্য আপনাকে ভালোবেসে কাজ করতে হবে একটুতেই ভেঙে পড়লে হবে না। 

আপনি যদি অনলাইন Live ক্লাস করে আমার কাছে শিখতে চান তাহলে যোগাযোগ করুন :- Click Here

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top